জনতা ব্যাংক গৃহ নির্মাণ/ফ্ল্যাট ঋণ ২০২৩ । সরকারি কর্মচারীদের গৃহ নির্মাণ ঋণ পাওয়ার সহজ উপায় কি?

সরকারি কর্মচারীদের গৃহ নির্মাণ বা ফ্ল্যাট নির্মান ঋণ নীতিমালা ২০১৮ সালে জারি হলেও সকল কর্মচারীর হাতের নাগালে এখনও আসেনি-তবে বর্তমানে কিছু ব্যাংক সহজেই গৃহ-নির্মাণ ঋণ প্রসেস করতে সাহায্য করছে –জনতা ব্যাংক গৃহ নির্মাণ/ফ্ল্যাট ঋণ ২০২৩

গৃহ নির্মাণ ঋণে কারা আবেদন করতে পারবেন? গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের আওতাধীন মন্ত্রণালয়/ বিভাগ/অধিদপ্তর/পরিদপ্তর/কার্যালয়সমূহে শুধুমাত্র স্থায়ী পদের বিপরীতে নিয়োগপ্রাপ্ত(বেসামরিক/সামরিক) কর্মকর্তা/কর্মচারী। ঋণ প্রাপ্তির সর্বোচ্চ বয়সসীমা ৫৬ বছর। আবেদনকারীর মাসিক বেতন-ভাতা Online/EFT পদ্ধতির আওতায় আসতে হবে।

ফ্ল্যাট বা গৃহ নির্মাণ ঋণের জন্য কারা আবেদন করতে পারবেন না? রাষ্ট্রায়ত্ত্ব ও স্বায়ত্ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠান, রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন কোম্পানীতে নিযুক্ত কর্মচারীগণ এই ঋণ সুবিধার আওতাভুক্ত হবেন না। চুক্তিভিত্তিক, খন্ডকালীন ও অস্থায়ীভিত্তিতে নিযুক্ত কোন কর্মচারী এই ঋণ পাওয়ার যোগ্য হবেন না। কোন সরকারি কর্মচারীর বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা রজু এবং দুর্নীতি মামলার ক্ষেত্রে চার্জশিট দাখিল হলে মামলার চূড়ান্ত নিস্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত এ নীতিমালার আওতায় ঋন গ্রহণের জন্য বিবেচনা হবেন না।

কি কি কারণে মঞ্জুরীকৃত ঋণ বাতিল হতে পারে? গৃহ নির্মাণ ঋণ মঞ্জুরি বাতিল – এই মঞ্জুরীপন্ন কোন অস্পষ্টতা বা কোন অসামঞ্জস্যতা পরিলক্ষিত হলে অর্থ বিভাগ কর্তৃক জারিকৃত ২৭/১০/২০২১ খ্রিঃ তারিখের ০৭.০০.০০০০.১০৭.২২.০০১.১১-৮৯৬ নম্বর পরিপন্নের বিধানাবলী পরিপালনযােগ্য হবে। পরবর্তীতে কোনরুপ অসম্পূর্ণ অথবা অসত্য কিংবা নীতিমালার সাথে অসংগতিপূর্ণ কোন তথ্য পরিলক্ষিত হলে এই আদেশ যেকোন সময় বাতিল করার ক্ষমতা অর্থ বিভাগ সংরক্ষণ করবে।

সরকারি চাকরিজীবীদের গৃহ নির্মাণ ঋণ ২০২৩ । ঋণ সিডিউল ও ঋণ গ্রহণে ব্যাংক সহায়তা করবে

সরকারি কর্মচারীদের জন্য গৃহ নির্মাণ ও ফ্ল্যাট ক্রয় বাবদ সর্বোচ্চ ৭৫ হাজার টাকা ঋণ প্রদান নীতিমালা ২০১৮ সালে জারি করা হয়। – কর্মচারীগণ স্বল্প বেতনের কারণে এ ঋণ না পেলেও কর্মকর্তাদের অনুকূলে গৃহ নির্মাণ ঋণ মঞ্জুর হচ্ছে – সরকারি চাকরিজীবীদের গৃহ নির্মাণ ঋণ ২০২৩

জনতা ব্যাংক গৃহ নির্মাণ/ফ্ল্যাট ঋণ ২০২৩ । সরকারি কর্মচারীদের গৃহ নির্মাণ ঋণ পাওয়ার সহজ উপায় কি?

Caption: House Building Loan Online Application Link

সরকারি কর্মচারীদের জন্য গৃহ নির্মাণ/ফ্ল্যাট ঋণের অনলাইনে আবেদন । আবেদনের ক্ষেত্র কি কি কাগজপত্র ও ডকুমেন্ট লাগবে

আবেদনকারীকে জনতা ব্যাংক লিমিটেড এর ওয়েব সাইটে গিয়ে প্রাথমিকভাবে ট্র্যাকিং নম্বর সংগ্রহ করার জন্য অনলাইনে আবেদন ফরম পূরণ করতে হবে। অনলাইন আবেদন ফরম পূরণ করলে তাকে একটি অটো জেনারেটেড ট্র্যাকিং নম্বর প্রদান করা হবে যা ডাউনলোড করে প্রিন্টআউট বের করতে হবে। অতঃপর আবেদনকারীকে জনতা ব্যাংকের ওয়েব পেইজ থেকে মূল আবেদন ফরম, ঋণের প্রাপ্যতা সংক্রান্ত প্রত্যয়ন, বেতন-ভাতা EFT এর মাধ্যমে প্রেরণ সংক্রান্ত প্রত্যয়ন ও চেকলিস্ট সংগ্রহ করতে হবে।

পরিশেষে প্রাথমিক আবেদনপত্র (ট্র্যাকিং নম্বরসহ), মূল আবেদন পত্র(যথাযথ পূরণকৃত), সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট হতে ঋণের প্রাপ্যতা সংক্রান্ত প্রত্যয়ন, বেতন-ভাতা EFT এর মাধ্যমে প্রেরণ সংক্রান্ত প্রত্যয়ন এবং চেকলিস্টে উল্লেখিত প্রয়োজনীয় সকল কাগজপত্রসহ আবেদনকারী যে শাখা বরাবর অনলাইনে আবেদন করেছেন সে শাখায় দাখিল করবেন। জনতা ব্যাংক লিমিটেড এর যে শাখা হতে ঋণ গ্রহনে ইচ্ছুক আবেদনকারীকে উক্ত শাখায় একটি হিসাব থাকতে হবে। উক্ত হিসাবের মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট কর্মচারীর বেতন/ভাতা/পেনশন এবং গৃহ নির্মাণ বা ফ্ল্যাট ক্রয় ঋণ বিতরণ ও আদায় সংক্রান্ত সমুদয় কার্যক্রম পরিচালিত হবে।

সরকারি চাকরিজীবীদের গৃহ নির্মাণ ঋণ ২০২৩ । অর্থ বিভাগের ঋণ সম্মতি এবং সুদ ভুর্তকি চূড়ান্ত মঞ্জুরি জারি

2 thoughts on “জনতা ব্যাংক গৃহ নির্মাণ/ফ্ল্যাট ঋণ ২০২৩ । সরকারি কর্মচারীদের গৃহ নির্মাণ ঋণ পাওয়ার সহজ উপায় কি?

  • 06/09/2023 at 10:30 PM
    Permalink

    আমার সোনালি ব্যাংকে এ্যাকাউন্ট নেই বেতন ইঐফটিতে ২৮০০০+ কিন্তু ক্রেডিট কার্ড আছে ৫ টা ২৫০০০০ লিমিট কোন লোন নাই আমার আমি কি
    সোনালি থেকে লোন পাবো জানাবেন

    Reply
    • 08/09/2023 at 6:30 AM
      Permalink

      যোগাযোগ করে দেখতে পারেন।

      Reply

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *