বিকাশ অ্যাপে ডিপিএস । বিকাশ সঞ্চয়ে এখন ৯.৫% সুদ দিচ্ছে?

বিকাশ ডিপিএস আপনি ঘরে বসেই করতে পারবেন এবং যখন তখন ভাঙ্গাতে পারবেন ঘরে বসেই-এজন্য কোন ফরম পূরণ করতে হবে না – বিকাশ অ্যাপে ডিপিএস

বিকাশ ডিপিএস কতজন করছেন?– ব্যাংকে না গিয়ে কিংবা ব্যাংক অ্যাকাউন্ট ছাড়াই ঘরে বসে মুহূর্তেই বিকাশ অ্যাপ থেকে ব্যাংকের মাসিক সঞ্চয়সেবা নেওয়ার সুযোগ থাকায় নারীদের মধ্যে বাড়ছে সঞ্চয়প্রবণতা। কয়েক সেকেন্ডেই বিকাশ অ্যাপ থেকে পছন্দমতো ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের সঞ্চয়সেবা খোলা, মাসিক কিস্তি জমা দেওয়াসহ সবকিছু হাতের মুঠোয় থাকায় সব শ্রেণির গ্রাহকের মধ্যে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে এই সেবা। বিশেষ করে নারীদের জন্য তৈরি করেছে বাড়তি সুবিধা। ফলে ডিজিটাল এই সুবিধা নিয়ে এখন পর্যন্ত তিন লাখের বেশি নারী বিকাশের মাধ্যমে চারটি ব্যাংক ও একটি আর্থিক প্রতিষ্ঠান থেকে বিভিন্ন মেয়াদের সঞ্চয়সেবা গ্রহণ করেছেন। সূত্র: প্রথম আলো

বিকাশ ডিপিএস কত টাকার করা যায়? ৫০০ থেকে ৩ হাজার টাকা পর্যন্ত ছোট অঙ্কের এসব সঞ্চয় স্কিম সহজেই নারীরা গ্রহণ করতে পারছেন, যা তাঁদের আর্থিক ব্যবস্থাপনাকে সহজ করছে, বাড়াচ্ছে আর্থিক কার্যক্রমে তাঁদের অংশগ্রহণ। ভবিষ্যতের নিরাপত্তা, সন্তানের লেখাপড়া, ছোট-বড় ব্যবসায়িক উদ্যোগ, ভ্রমণ, চিকিৎসা, অনুদানসহ নানান ব্যক্তিগত ও সামাজিক প্রয়োজনে এই সঞ্চয় করছেন তাঁরা। তাছাড়া যখন তখন বিকাশ ডিপিএস বা সঞ্চয় ভাঙ্গা যায় তাই এটি খুবই সুবিধাজনক। এজন্য ব্যাংকে দৌড়াতে হয় না।

মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক এর সেভিংস স্কিমের আওতায় প্রতিমাসে জমার টাকা স্বয়ংক্রিয়ভাবে আপনার বিকাশ একাউন্ট থেকে কেটে নেয়া হবে এবং মেয়াদ শেষে লাভসহ আসল টাকা পেয়ে যাবেন আপনার বিকাশ একাউন্টে। শুধু তাই নয়, মেয়াদ শেষে লাভসহ সম্পূর্ণ টাকা ক্যাশ আউট করতে কোনো খরচও লাগবেনা। জমার পরিমাণ: প্রতিমাসে ৫০০/১,০০০/২,০০০/৩,০০০ টাকা। সেভিংস স্কিমের মেয়াদ: ২/৩/৪ বছর। মেয়াদ শেষে লাভসহ সম্পূর্ণ টাকা ক্যাশ আউট করতে কোনো খরচ লাগবেনা।দেশের প্রচলিত আইন অনুযায়ী এআইটি ও আবগারি শুল্ক প্রযোজ্য হবে

যে কোন স্কিমটি গ্রহণের মাধ্যমেই কিছু কিছু অর্থ জমা করতে পারেন / আজকের সঞ্চয় দূর্দিনের সঙ্গী।

বিকাশে আপনারও হয়তো একটি একাউন্ট আছে যেখাবে আপনি মাসে মাত্র ৫০০ টাকা জমিয়ে বছরে ১২০০০ টাকা জমা করতে পারেন এবং মেয়াদ শেষে ৯.৫% হারে মুনাফা পেয়ে ১৩,২০২ টাকা পর্যন্ত গ্রহণ করতে পারেন। তবে আপনি বিকাশের ব্র্যাক ব্যাংকে ডিপিএস করলে ৮% ইন্টারেস্ট পাবেন।

Caption: bkash DPS

টাকা জমান বিকাশে । জেনে নিন বিকাশ অ্যাপ দিয়ে কীভাবে ইসলামিক সেভিংস শুরু করবেন?

  1. বিকাশ অ্যাপের হোমস্ক্রিন থেকে ‘সেভিংস’ বাটনে ট্যাপ করে এগিয়ে যান
  2. এখন ‘নতুন সেভিংস স্কিম খুলুন’-এ ট্যাপ করুন
  3. ইসলামিক সেভিংস বেছে নিন
  4. সেভিংস-এর মেয়াদ (২/৩/৪ বছর) ও জমার ধরন (মাসিক) নির্বাচন করুন
  5. প্রতিমাসে যে পরিমাণ টাকা জমাবেন (৫০০/১,০০০/২,০০০/৩,০০০) তা সিলেক্ট করুন
  6. সিটি ব্যাংক ইসলামিকের মোট জমার তথ্য দেখে এগিয়ে যান
  7. আপনার নমিনি সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় তথ্য দিয়ে সেভিংস-এর উদ্দেশ্য নির্বাচন করুন
  8. সেভিংস এর সার-সংক্ষেপ দেখে নিশ্চিত করুন
  9. নিয়ম ও শর্তাবলি ভালোভাবে পড়ে, বুঝে আপনার সম্মতি দিন
  10. আপনার বিকাশ একাউন্টের পিন দিন
  11. সবশেষে – স্ক্রিনের নিচের অংশ ট্যাপ করে ধরে রাখুন
  12. সেভিংস-এর রিকোয়েস্টটি সম্পন্ন হলে, বিকাশ ও সিটি ব্যাংক থেকে কনফার্মেশন ম্যাসেজ পাবেন
  13. ব্যাস! আপনি সফলভাবে ডিজিটাল পদ্ধতিতে খুলে ফেললেন আপনার ইসলামিক সেভিংস স্কিম। প্রতিমাসের নির্দিষ্ট তারিখে আপনার বিকাশ একাউন্টে পর্যাপ্ত ব্যালেন্স রাখুন এবং কোনো খরচ ছাড়াই মেয়াদশেষে মুনাফাসহ মোট পরিমাণ ক্যাশ আউট করুন!

বিকাশ সিটি ইসলামিক ব্যাংকিং এ কি কোন হিডেন চার্জ আছে?

আপনার বিকাশ অ্যাপ থেকে আপনি একাধিক সেভিংস স্কিম খুলতে পারবেন। সেভিংস স্কিমে নমিনির তথ্য প্রয়োজন অনুযায়ী পরিবর্তন করতে পারবেন। সেভিংস স্কিমের জন্য বিকাশ/দ্য সিটি ব্যাংক লিমিটেডের পক্ষ থেকে কোনো লুকানো/অতিরিক্ত চার্জ নেই। আপনার ই-টিন এর তথ্য সেভিংস স্কিমে প্রদান করলে আপনি সেভিংস স্কিমে অর্জিত লাভের উৎসে কর কম কর্তন করা হবে। এক্ষেত্রে সেভিংস স্কিমের মেয়াদ শেষ হবার আগে আপনি বিকাশ অ্যাপের সেভিংস অপশনে গিয়ে যেকোনো সময় ই-টিন এর তথ্য প্রদান করতে পারবেন। আর ই-টিন না থাকলে, এনবিআর-এর ওয়েবসাইটে গিয়ে তা গ্রহণ করুন: https://secure.incometax.gov.bd/TINHome

বিকাশ নিয়ে এল নতুন ডিপিএস স্কিম ২০২৩ । মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংকে টাকা জমান বিকাশে!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *