DPS Premature Encashment । ৫০০০ টাকার ডিপিএস ২০ কিস্তি পর ভাঙ্গালে সুদসহ কত টাকা পাবেন?

পি-ম্যাচিউর ডিপিএস এনক্যাশমেন্ট করার ক্ষেত্রে কিছু ব্যাংক ১-২ বছর হলে কোন সুদই দেয় না- আবার কোন ব্যাংক ২.৫% হারে সুদ দেয় আবার কোন ব্যাংক ব্যাংক রেট বা ৫% হারে সুদ প্রদান করে থাকে ১৫% ইনকাম ট্যাক্স কেটে নেয়– DPS Premature Encashment

সোনালী ব্যাংকে ৫ হাজার করে রেখে ২ বছর পূর্ন হওয়ার পূর্বে ভাঙ্গালে কত পাওয়া যাবে? – আপনি ধরন ২০ মাস ধরে ১,০০,০০০ টাকা জমিয়েছেন। ১,০০,০০০ টাকার উপর ২.৫% হারে সুদ প্রদান করবে। এটি মূলত সঞ্চয়ী হিসাবে জমা রাখলে ব্যাংক বছর শেষে প্রদান করে থাকে। যেহেতু দুই বছর পূর্ণ হয় নাই তাই প্রথম বছরের জন্য ২৫০০ টাকা সুদ প্রদান করেছে। অবশিষ্ট ৮ মাসের কোন সুদই দেয় না। আপনি সফটওয়্যার হতে ১,০২,৫০০ টাকা পাবেন। তবে কোন কোন ব্যাংক আবার প্রিম্যাচিউর ভাঙ্গানিতে ০% ইন্টারেস্ট দিয়ে থাকে। তাই ব্যাংক না জমা করে আপনি বিকাশে ডিপিএস করুন ফলে ভাঙ্গানো এবং মুনাফার পরিমাণ ভাল পাবেন।

বিকাশ ডিপিএস কত টাকার করা যায়? ৫০০ থেকে ৩ হাজার টাকা পর্যন্ত ছোট অঙ্কের এসব সঞ্চয় স্কিম সহজেই নারীরা গ্রহণ করতে পারছেন, যা তাঁদের আর্থিক ব্যবস্থাপনাকে সহজ করছে, বাড়াচ্ছে আর্থিক কার্যক্রমে তাঁদের অংশগ্রহণ। ভবিষ্যতের নিরাপত্তা, সন্তানের লেখাপড়া, ছোট-বড় ব্যবসায়িক উদ্যোগ, ভ্রমণ, চিকিৎসা, অনুদানসহ নানান ব্যক্তিগত ও সামাজিক প্রয়োজনে এই সঞ্চয় করছেন তাঁরা। তাছাড়া যখন তখন বিকাশ ডিপিএস বা সঞ্চয় ভাঙ্গা যায় তাই এটি খুবই সুবিধাজনক। এজন্য ব্যাংকে দৌড়াতে হয় না।

ব্যাংকে যাবেন ডিপিএস ভাঙ্গানোর আবেদন কিভাবে করবেন? প্রথমে নির্ধারিত ফর্মে আবেদন করবেন। তারপর ব্যাংক ম্যানেজার আবেদন পত্রটি গৃহীত সিল,স্বাক্ষর দিয়ে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তার কাছে পাঠিয়ে দিবে। সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা আপনার সাথে কথা বলবেন আপনার ডিপিএস ভাঙ্গানো নিয়ে কোন জিজ্ঞাসা থাকলে বলবেন। সুদ কত দিবে বা না দিবে সেটিও আপনাকে অবগত করবে। সবশেষে আপনাকে ঐ কর্মকর্তা চিন্তা ভাবনা করে ১০/১৫ দিন সময় নিতে পার এবং বলে দিবে অমুক তারিখে আসেন। সেই দিনই আপনার টাকা আপনার একাউন্ট Transfer এর মাধ্যমে জমা করে দিবে। তবে আপনি চাইলে ডিজিটাল পদ্ধতিতে ডিপিএস করতে পারেন ঘরে বসেই, যে সকল অ্যাপে ভাঙ্গানোর অপশন আছে সেই অ্যাপে ডিপিএস খুলুন।

সব ব্যাংক কি ম্যাচিউর ও পিম্যাচিউর সিডিউল করে?/ কিছু ব্যাংক কোন পি-ম্যাচিউল সিডিউল করেন না

ব্যাংকে ডিপিএস করাতে আপনার টাকা জমবে কিন্তু অনেক বাড়বে এটি নয়। তবে ম্যাচুরিটি পেলে কিছু মুনাফা বা সুদ পাবেন। ইমার্জেন্সি বা জরুরি ফান্ডের জন্য ডিপিএস করবেন না।

ম্যাচিউরিটি ভ্যালু টেবিল

Caption: DPS Application Form Download

বিকাশের নতুন ডিপিএস স্কিম ২০২৪ । জেনে নিন বিকাশ অ্যাপ দিয়ে কীভাবে টাকা জমানো শুরু করবেন?

  1. বিকাশ অ্যাপের হোমস্ক্রিন থেকে ‘সেভিংস’ বাটনে ট্যাপ করে নিয়ম ও শর্তাবলিতে সম্মতি দিয়ে এগিয়ে যান।
  2. এখন ‘নতুন সেভিংস স্কিম খুলুন’-এ ট্যাপ করুন।
  3. সেভিংস-এর সময়কাল (২/৩/৪ বছর) ও জমার ধরন (মাসিক) নির্বাচন করুন।
  4. প্রতিমাসে যে পরিমাণ টাকা জমাবেন (৫০০/১,০০০/২,০০০/৩,০০০) তা সিলেক্ট করুন।
  5. মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক এর স্কিম নির্বাচন করে মোট জমার তথ্য দেখে এগিয়ে যান।
  6. আপনার নমিনি সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় তথ্য দিয়ে সেভিংস-এর উদ্দেশ্য নির্বাচন করুন।
  7. সেভিংস সামারি দেখে নিশ্চিত হয়ে নিন।
  8. নিয়ম ও শর্তাবলী ভালোভাবে পড়ে, বুঝে আপনার সম্মতি দিন।
  9. আপনার বিকাশ একাউন্টের পিন দিন।
  10. সবশেষে – স্ক্রিনের নিচের অংশ ট্যাপ করে ধরে রাখুন।
  11. সেভিংস-এর রিকোয়েস্টটি সম্পন্ন হলে, বিকাশ ও মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক থেকে কনফার্মেশন ম্যাসেজ পাবেন।
  12. ব্যাস! আপনি সফলভাবে ডিজিটাল পদ্ধতিতে খুলে ফেললেন আপনার সেভিংস স্কিম

বিকাশে ডিপিএস করলে কত % সুদ দেয়?

বর্তমানে বিকাশে ডিপিএস করলে ব্র্যাক ব্যাংক ৮% সুদ প্রদান করে থাকে। কোন কোন ক্ষেত্রে ৭% প্রদান করা হয়। আইডিএলসি এবং উত্তরা ব্যাংক এবং মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক ৭.৫% সুদ প্রদান করে থাকে। বিকাশে ডিপিএস করার সুবিধা হল আপনি যখন তখন ভাঙ্গাতে পারবেন। ডিপিএস করার ৬ মাস পূর্ণ হলেই কিছু সুদ সহ তা ভাঙ্গাতে পারবেন। আপনার জরুরি মুহুর্তে আপনি উক্ত টাকা কাজে লাগাতে পারবেন এবং রিকুয়েস্ট পাঠানোর ১-২ দিনের মধ্যে টাকা বিকাশ একাউন্টে চলে আসে এবং আপনাক ব্যাংকে যেতে হয় না।

বিকাশ নিয়ে এল নতুন ডিপিএস স্কিম ২০২৩ । মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংকে টাকা জমান বিকাশে!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *